বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ০৪:৫৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ঢাবিতে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেন ২ নারী নতুন বউকে বাইকে চড়িয়ে কোথায় চলেছেন মুমিনুল নুসরাত হত্যা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে: আইনমন্ত্রী ইন্দোনেশিয়ার গণমাধ্যমে পেন্সিলে আঁকা খালেদা জিয়ার কারাজীবন ‘যারা দলের সিদ্ধান্তের বাইরে শপথ নেয়, তারা জাতীয়তাবাদী আদর্শের নয়’ আনিস খাদেম হত্যায় ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড শ্রীলঙ্কায় ড্রোন নিষিদ্ধ সুপ্রভাতের মালিক, কন্ডাকটর হেলপারের বিরুদ্ধে চার্জশিট শ্রীলঙ্কার মতো বাংলাদেশেও জঙ্গি হামলার চেষ্টা চলছে ছেঁড়া তার জুড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মৃত্যু স্টার সিনেপ্লেক্সে সিনেমার অগ্রিম টিকেট কিনতে মানুষের ঢল ড. কামালের ব্যাংক হিসাব তলব কলেরা হাসপাতালে ধারণ ক্ষমতার তিনগুণ বেশি রোগী হয় দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তারা থাকবে, না হয় আমি থাকব মোবাইল টাওয়ারের ক্ষতিকর দিক জানতে চেয়েছেন আদালত চীনের ‘টপ সিক্রেট’ মিসাইলের তথ্য ফাঁস জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রচার করবেন:প্রধানমন্ত্রী সাত কলেজের আন্দোলন: সোমবার পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি শ্রীলংকায় ফের বিস্ফোরণ পোলার্ডকে ছাড়াই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপ দল
মার্চে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে

মার্চে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে

বাংলা৭১নিউজ,ঢাকা: মাছ, মাংস, শাক-সবজি, কাপড়, চিকিৎসেবা, পরিবহন খরচসহ বিভিন্ন পণ্যের দাম ফেব্রুয়ারির তুলনায় বেড়েছে। এর প্রভাবও পড়েছে মূল্যস্ফীতিতে। ফেব্রয়ারির তুলনায় মার্চে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৫ দশমিক ৪৭ ভাগ। মার্চে তা বেড়ে দাঁড়ায় ৫ দশমিক ৫৫ ভাগ। তবে ২০১৮ সালের মার্চে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৫ দশমিক ৬৮ ভাগ।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে মূল্যস্ফীতি বাড়ার তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

তিনি বলেন, ‘শুধু ফেব্রুয়ারি মাসের সঙ্গে তুলনা করলে মার্চ মাসে মূল্যস্ফীতি একটু বেড়েছে। তবে মূল্যস্ফীতি কোনো সরল রেখা নয়।’

মূল্যস্ফীতির বাড়ার কারণ জানতে চাইলে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, ‘এ সময়ে যে কাঁচা বাজার, বিশেষ করে শাক-সবজি, মাছ-মাংসের দাম বাড়ার কারণেই মূল্যস্ফীতি বেড়েছে।’

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, মার্চে গ্রামীণ পর্যায়ে মূল্যস্ফীতির শতকরা হার দাঁড়ায় ৫ দশমিক ৩৮ ভাগ, যা ফেব্রুয়ারিতে ছিল ৫ দশমিক ২৬ ভাগ। শহর পর্যায়ে মূল্যস্ফীতি হার ৫ দশমিক ৮৬ ভাগ, যা ফেব্রুয়ারিতে ছিল ৫ দশমিক ৮৫ ভাগ।

মূল্যস্ফীতির হ্রাস-বৃদ্ধি পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, মাছ, মাংস, শাক-সবজি, ভোজ্য তেল, ফলমূল ও অন্যান্য খাদ্যদ্রব্যের মূল্য মার্চে বেড়েছে। খাদ্যের বাইরে পরিধেয় বস্ত্র, চিকিৎসা সেবা, পরিবহনসহ বিভিন্ন পণ্যের দামও এই মাসে বেড়েছে।

গত এক বছরের (২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৯ সালের মার্চ) চলন্ত গড় মূল্যস্ফীতির হার ৫ দশমিক ৪৮ ভাগ। এর এক বছর আগে (২০১৭ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৮ সালের মার্চ) চলন্ত গড় মূল্যস্ফীতির হার ছিল শতকরা ৫ দশমিক ৮২ ভাগ।

বাংলা৭১নিউজ/এস.এম

Please Share This Post in Your Social Media


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ – ২০১৯ । জেডএস মাল্টিমিডিয়া লিমেটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান