শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ০৬:২১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ক্রিকেট খেলার বাজি ধরতেই গৌরীপুর জংশনের ক্যাশের টাকা লুট! ইতালিতে স্কুলবাস ছিনতাই করে আগুন, চালক গ্রেপ্তার অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন মেনন গুজবে সালমান খান কনে সেজেছে বরও হাজির, এমন সময়… চীনে গাড়ি নিয়ে হামলায় নিহত ৬ অশালীন উদযাপনে ১৯ লাখ টাকা জরিমানা রোনালদোর বিশ্বের সবচেয়ে ছোট মিউজিয়াম দেখে নিন বাংলাদেশ দলের আয়ারল্যান্ড সফরের সূচি বরিশালে বাস-মাহিন্দ্রা মুখোমুখি সংঘর্ষে শিক্ষার্থীসহ নিহত ৫ কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩ ইরাকে ফেরি ডুবে শতাধিক মানুষের মৃত্যু স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে বসানো হলো ৯ নম্বর স্প্যান আমরা সবাই এক: জেসিন্ডা সাংবাদিক আনোয়ারুল হক আর নেই নীলাচলের চাপায় সড়কেই লাশ বাবা-ছেলে ব্রাশফায়ারে নিহতদের পরিবারকে সাড়ে ৫ লাখ টাকা করে দেয়া হবে এক টুকরো বরফেই কেল্লা ফতে মুক্তি পেল ট্রেলার, পাকিস্তানকে হুঙ্কার দিলেন ‘মোদী’ সফল অস্ত্রোপচারের পর ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্যের উন্নতি
পাকিস্তানের আমন্ত্রনে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের না!

পাকিস্তানের আমন্ত্রনে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের না!

বাংলা৭১নিউজ,ডেস্ক: ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সীমান্ত যুদ্ধের উত্তেজনা কিছুটা প্রশমিত হলেও এখন তার প্রভাব পড়েছে দুই দেশের ক্রিকেট অঙ্গনে।পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) তাঁদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের পদক্ষেপ নিলেও তা ফলপ্রসূ হয়নি।

জানা যায়, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড তাদের পিএসএল ফাইনাল দেখতে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কর্মকর্তাদের আমন্ত্রণ করেছিল।পরে পিসিবি সভাপতি এহসান মানি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁদের দাওয়াত প্রত্যাখ্যান করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই। ফলে পিএসএল ফাইনাল দেখতে আসছেন না বিসিসিআইয়ের কোনো কর্মকর্তা।

সীমান্ত নিয়ে দুই দেশের সর্বশেষ সংকটের শুরু গত ১৪ ফেব্রুয়ারি। ওই দিন ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধা সামরিক সিআরপিএফের গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জওয়ান নিহত হন। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ এ হামলার দায় স্বীকার করে।

এই ঘটনার ১২ দিন পর গত মঙ্গলবার ভোরে পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারত। পরদিন দুই দেশের সেনাদের মধ্যে কাশ্মীর সীমান্তে গোলা ও গুলিবিনিময় হয়। বুধবার সকালে বালাকোটে হামলার বদলা নেয় পাকিস্তান। এরপর আকাশযুদ্ধে ভারত হারায় দুটি যুদ্ধবিমান। পাকিস্তান বাহিনীর হাতে বন্দী হন দেশটির এক পাইলট।

ওই সময় যুদ্ধ প্রায় লেগেই গিয়েছিল দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে। পাকিস্তান আটককৃত ভারতীয় পাইলটকে ফেরত দেওয়ায় পরিস্থিতি এখন আগের তুলনায় শান্ত।

আগামী ১৭ মার্চ করাচি স্টেডিয়ামে গড়াবে পিএসএল ফাইনাল। এই ম্যাচ দেখতে শুধু বিসিসিআই নয় অন্যান্য দেশের ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তাদেরও আমন্ত্রণ করেছে পিসিবি। বাদ পড়েনি আইসিসিও।

সংস্থাটির সভাপতি শশাঙ্ক মনোহর, প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসনকে আমন্ত্রণপত্র পাঠিয়েছে পিসিবি। তবে পিসিবি সভাপতি এহসান মানি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁদের দাওয়াত প্রত্যাখ্যান করেছে বিসিসিআই। পিএসএল ফাইনাল দেখতে আসছেন না বিসিসিআইয়ের কোনো কর্মকর্তা।

পিসিবি সভাপতি জানান, ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পিএসএল ফাইনাল দেখতে পাকিস্তানে যাওয়ার ব্যাপারে অপারগতা প্রকাশ করেছেন বিসিসিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সি কে খান্না। একই কারণে যেতে পারবেন না আইসিসি সভাপতি শশাঙ্ক মনোহরও—যিনি একজন ভারতীয়।

মানি বলেন, ‘খান্না ও মনোহর দুজনেই ব্যক্তিগত কারণে পাকিস্তানে এসে ফাইনাল দেখার ব্যাপারে অপারগতা প্রকাশ করেছেন।’ তবে আইসিসির প্রধান নির্বাহী রিচার্ডসন ফাইনাল দেখতে করাচিতে থাকবেন।

ভারত, বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ডকে দাওয়াত করেছে পিসিবি। এসব দেশের বোর্ডকে বলার পেছনে একটি উদ্দেশ্যও আছে পিসিবির।

মানি বলেন, ‘তাঁদের ডাকার কারণ হলো, এখানে এসে তাঁরা ফাইনালের আয়োজন দেখলে পাকিস্তানে নিরাপত্তার ব্যাপারে সবার ভুল ভাঙবে। পাকিস্তানে যে এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা যায় আমরা তা নিশ্চিত করতে চাই।’২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কার দলীয় বাসে হামলা করেছিল সন্ত্রাসীরা। এরপর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বন্ধ রয়েছে পাকিস্তানে। বড় কোনো দল আর পাকিস্তান সফরে যায়নি।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও দেশটিকে বিশ্বকাপ জেতানো সাবেক অধিনায়ক ইমরান খান পিএসএল ফাইনাল দেখতে স্টেডিয়ামে আসবেন কি না তা এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি বোর্ড।

এদিকে পিসিবির সূত্র মারফত পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘এক্সপ্রেস’ জানিয়েছে, তাঁদের বোর্ড বিসিসিআই অফিশিয়ালদের ফাইনাল দেখার জন্য দাওয়াত করেছে সাম্প্রতিক সীমান্ত সংঘাতের আগে। এমন কিছু ঘটবে তা আঁচ করতে পারলে পিসিবি নাকি বিসিসিআইকে দাওয়াত করত না!

বাংলা৭১নিউজ/এসএইচ

Please Share This Post in Your Social Media


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ – ২০১৯ । জেডএস মাল্টিমিডিয়া লিমেটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান